একদিনের ব্যবধানে সবজির দাম বেড়ে দ্বিগুণ

রোজার মাসের তুলনায় রাজধানীর বাজারগুলোতে সবজির দাম কিছুটা কমলেও, শুক্রবার একদিনের ব্যবধানে বেশিরভাগ সবজির দাম বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে মাছ ও মাংসের দাম।

শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার, শান্তিনগর, সেগুনবাগিচা, রামপুরা, মালিবাগ হাজীপাড়া, খিলগাঁও অঞ্চলের বিভিন্ন বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, ঢেঁড়সের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, যা গতকাল ছিল ৩০ থেকে ৪০ টাকা। গতকাল ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজির মধ্যে বিক্রি হওয়া ঝিঙ্গার দাম বেড়ে হয়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা।

দাম বাড়ার এই তালিকায় আরও রয়েছে- করলা, কাকরল, পটল, উসি, বেগুন, গাজর, শসা, পেঁপে। গতকাল ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া উসি বাজারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে। একই দামে বিক্রি হচ্ছে পটল। গতকাল বিভিন্ন বাজারে পটল ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হয়।

গতকাল ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া করলার দাম বেড়ে হয়েছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা। কাকরোল বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি, যা গতকাল ছিল ২০ থেকে ৩০ টাকা। বেগুনের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে, যা গতকাল ২০ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে।

এছাড়া গতকাল ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া পেঁপের দাম বেড়ে হয়েছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা। ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া বরবটির দাম বেড়ে হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া শসার দাম বেড়ে হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। একই দামে বিক্রি হচ্ছে গাজর। পাকা টমেটো পাওয়া যাচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে, যা গতকাল ছিল ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি।

একদিনের ব্যবধানে সবজির এমন দাম বাড়ার বিষয়ে কারওয়ানবাজারের ব্যবসায়ী মো. আরিফ বলেন, শুক্রবার হওয়ার কারণে আজ সবজির দাম কিছুটা বেশি। তবে সার্বিকভাবে রোজার মাসের তুলনায় এখন সবজির দাম তুলনামূলক কম। আজ যেসব সবজি ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে, আগামীকাল দেখবেন এর বেশিরভাগ ২০ টাকায় বিক্রি হবে।

সবজির দাম বাড়লেও অপরিবর্তিত রয়েছে পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম। পেঁয়াজ আগের মতো খুচরা বাজারে ৩০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর পাইকারিতে পেঁয়াজের পাল্লা (৫ কেজি) বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা। আগের মতোই কাঁচা মরিচের পোয়া (২৫০ গ্রাম) বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকা।

এদিকে রোজার মাসের তুলনায় কিছুটা কমেছে মুরগির দাম। ব্যবসায়ীরা ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি, যা রোজার মাসে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা ছিল। মুরগির দাম কিছুটা কমলেও অপরিবর্তিত রয়েছে গরু ও খাসির মাংস এবং ডিমের দাম। গরুর মাংস বাজারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫২৫ থেকে ৫৫০ টাকা কেজি দরে। আর খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ থেকে ৮৫০ টাকা কেজি। আর ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১০৬ টাকা।

এদিকে কয়েক মাস ধরে চড়া দামে বিক্রি হওয়া মাছের দাম এখনও বেশ চড়া। তেলাপিয়া মাছ আগের মতো বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। পাঙাশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। রুই মাছ ২৮০ থেকে ৬০০ টাকা, পাবদা ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা, টেংরা ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা, শিং ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা এবং চিতল মাছ বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা কেজি।

বাজেট অধিবেশন শুরু, চলবে ১১ জুলাই পর্যন্ত

শুরু হয়েছে একাদশ সংসদের প্রথম বাজেট অধিবেশন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকাল ৫টায় এ অধিবেশন শুরু হয়। আগামী বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হবে। এটি একাদশ সংসদের তৃতীয় অধিবেশন।
বাজেট অধিবেশন শুরুর আগে অনুষ্ঠিত সংসদের কার্য-উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, অধিবেশন ১১ জুলাই পর্যন্ত চলবে।
কার্য-উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট পেশ হবে। বাজেট পাস হবে ৩০ জুন।
অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার শিরীন শারমিন এ অধিবেশনের সভাপতিমণ্ডলীর মনোনয়ন দেন। স্পিকার বা ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা সংসদ পরিচালনা করেন। এ অধিবেশনে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন রফিকুল ইসলাম, এবি তাজুল ইসলাম, হাবিবে মিল্লাত, কাজী ফিরোজ রশীদ ও মেহের আফরোজ চুমকি।
পরে স্পিকার সাবেক সংসদ সদস্য এবিএম তালেব আলী, ব্যারিস্টার আমিনুল হক, আবদুল আলী মৃধা, আব্দুল মজিদ মাস্টার এবং একেএম বজলুল করিমের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এছাড়া বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহানার ভাশুর রফিক আহমেদ সিদ্দিক, নাট্যকার অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমদ, বরেণ্য সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী, কবি হায়াৎ সাইফ, নজরুল সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেন, কঙ্গোতে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত পুলিশের অতিরিক্ত আইজি রৌশন আরা, অভিনেতা আনিসুর রহমান, সালেহ আহমেদ এবং অভিনেত্রী মায়া ঘোষের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।
এছাড়া ঘুর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে, রাশিয়ায় বিমান দুর্ঘটনায় এবং দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে শোক প্রকাশ করা হয়।
শোক প্রস্তাব উত্থাপনের পর মৃতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান।
অধিবেশন চলবে ১১ জুলাই পর্যন্ত
সংসদ অধিবেশন শুরুর আগে এর মেয়াদ নিয়ে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে বসে কার্য-উপদেষ্টা কমিটি। প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয়, কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ১১ জুলাই পর্যন্ত অধিবেশন চলবে। প্রতিদিন বিকাল ৩টায় অধিবেশন শুরু হবে। ২২ ও ২৯ জুন সাপ্তাহিক বন্ধের দিনও সংসদের বৈঠক বসবে।
সংসদে ১৬ জুন ২০১৮-১৯ বছরের সম্পূরক বাজেট নিয়ে আলোচনা হবে। ১৭ জুন পাস হবে সম্পূরক বাজেট। ১৮ জুন থেকে শুরু হবে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনা।

আরও ২২ পণ্য বাজার থেকে তুলতে নির্দেশ বিএসটিআইর

বড় ব্রান্ডের ভেজাল তালিকায় রয়েছে স্কয়ারের রাঁধুনী ধনিয়া গুঁড়া ও জিরার গুঁড়া, প্রানের ঘি, মুসকানের লবন এবং কুলসন ব্রান্ডের লাচ্ছা সেমাই উল্লেখযোগ্য

খোলা বাজার থেকে সংগ্রহ করা ৪০৬টি পণ্যের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় অবশিষ্ট ৯৩টি পণ্যের মান পরীক্ষা করে ২২টি ব্র্যান্ডের পণ্যকে ‘নিম্ন মানের বলে ঘোষণা করেছে জাতীয় মান নির্ধারণকারী সংস্থা বিএসটিআই।

এসব পণ্য আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বাজার থেকে তুলে নিতে কোম্পানিগুলোকে মঙ্গলবার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে হাসেম ফুডসের কুলসন ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাই এবং এস এ সল্টের মুসকান ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ, প্রাণ ডেইরির প্রাণ প্রিমিয়াম ব্র্যান্ডের ঘি, স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজের রাঁধুনী ব্র্যান্ডের ধনিয়া গুঁড়া ও জিয়ার গুঁড়া, চট্টগ্রামের যমুনা কেমিক্যাল ওয়ার্কসের এ-৭ ব্র্যান্ডের ঘি, চট্টগ্রামের কুইন কাউ ফুড প্রোডাক্টসের গ্রিন মাউন্টেন ব্র্যান্ডের বাটার অয়েল, চট্টগ্রামের কনফিডেন্স সল্টের কনফিডেন্স ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ, ঝালকাঠির জে কে ফুড প্রোডাক্টের মদিনা ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাই, চাঁদপুরের বিসমিল্লাহ সল্ট ফ্যাক্টরির উট ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ এবং চাঁদপুরের জনতা সল্ট মিলসের নজরুল ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ।

এসব পণ্যের লাইসেন্স স্থগিত করেছে বিএসটিআই।

তবে থ্রি স্টার ফ্লাওয়ার মিলের থ্রি স্টার ব্র্যান্ডের হলুদের গুঁড়া এবং এগ্রো অর্গানিকের খুশবু ব্র্যান্ডের ঘি নিম্নমানের হওয়ায় কোম্পানি দুটির লাইসেন্স বাতিল করেছে বিএসটিআই।

আরও ৮টি প্রতিষ্ঠান বিএসটিআইয়ের কোনো লাইসেন্স ছাড়াই পণ্য বাজারজাত করছিল। তাদের নাম প্রকাশ না করে এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়োমিত মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিএসটিআই।

বিএসটিআইয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “পণ্যগুলোর মানোন্নয়ন করে পুনঃঅনুমোদন ব্যতিরেকে সংশ্লিষ্ট উৎপাদনকারী, সরবরাহকারী, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের পণ্য বিক্রি-বিতরণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার হতে বিরত থাকার জন্য এবং সংশ্লিষ্ট উৎপাদনকারীগণকে বিক্রিত মালামাল বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ প্রদান করা হল।”

গত রোজাকে সামনে রেখে বাজার থেকে ৪০৬টি পণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে তার মান পরীক্ষা করে বিএসটিআই। গত ১ মে প্রথম ধাপে ৩১৩টি পণ্যের মান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে তারা। সেখানে ৫২টি ব্র্যান্ডের পণ্যকে নিম্নমানের বলে ঘোষণা করা হয়। তবে পরে কয়েকটি পণ্য মানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তাদের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় বিএসটিআই।

এরপর দ্বিতীয় ধাপে বাকি ৯৩টি পণ্যের মান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হল।

আরও আড়াই লাখ টন ধান কিনবে সরকার

দাম পড়ে যাওয়ার কৃষকদের কাছ থেকে আরও আড়াই লাখ মেট্রিক টন বোরো ধান কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান। কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এবার বোরোর ফলন ‘অনেক উদ্বৃত্ত’ হয়ে গেছে। দেশের খাদ্য গুদামগুলোর ধারণ ক্ষমতা ১৯ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন। আর এখন গুদামে আছে ১৪ লাখ মেট্রিক টন খাদ্যশষ্য ।

“সোমবার প্রধানমন্ত্রী দিক নির্দেশনা দিয়েছেন, আমরা আরও আড়াই লাখ মেট্রিক টন ধান কৃষকের কাছ থেকে কিনব। এতেও বাজার না উঠলে (ধানের) পরিমাণ আরও বাড়াব, যেন কৃষক নায্যমূল্য পান।”

এই আড়াই লাখ টনের বাইরে প্রয়োজনে আরও এক বা দুই লাখ মেট্রিক টন ধান কৃষকের কাছ থেকে কেনা হবে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী রাজ্জাক।

এবছর বোরো মৌসুমে সরকার ১০ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল, দেড় লাখ টন আতপ চাল এবং দেড় লাখ টন বোরো ধান এবং ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম কেনার সিদ্ধান্ত নেয়। ঠিক হয়, ২৫ এপ্রিল থেকে প্রতিকেজি ধান ২৬ টাকা এবং প্রতি কেজি চাল ৩৬ টাকায় কিনবে সরকার।

কিন্তু সরকারিভাবে ধান-চাল ক্রয় শুরু হতে দেরির কারণে ফড়িয়ারা সেই সুযোগ নেয়। তারা ইচ্ছামতো দাম নির্ধারণ করলে ধান নিয়ে অসহায় অবস্থায় পড়েন কৃষকরা। উৎপাদন খরচ না ওঠায় অসন্তোষ থেকে পাকা ধানে কৃষকের আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটে।

এই পরিস্থিতিতে কৃষকদের বাঁচাতে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে মন্ত্রণালয়কে বেশি ধান কেনার ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করে খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। পাশাপাশি চাল আমদানি নিরুৎসাহিত করতে শুল্ক বাড়ানো হয়।

খাদ্যমন্ত্রী জানান, এখন পর্যন্ত কৃষকের কাছ থেকে ৩০ হাজার টন বোরো ধান কেনা হয়েছে। এক লাখ ২০ হাজার টন ধান কেনা এখনও বাকি আছে।

আরও দেড় লাখ টন ধান কেনার সিদ্ধান্ত হওয়ায় এবার সব মিলিয়ে মোট চার লাখ টন বোরো ধান কৃষকের কাছ থেকে কিনবে সরকার।

শেষ পর্যন্ত পরিত্যক্ত বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ

বাংলাদেশের সমর্থকরা এই ম্যাচটার দিকে তাকিয়ে ছিলেন। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান বলছে, শ্রীলঙ্কার থেকে বাংলাদেশ শক্তিমত্তায় বেশ এগিয়ে। এই ম্যাচটিতে তাই পূর্ণ ২ পয়েন্ট পাওয়ার আশায় ছিলেন টাইগার ভক্ত-সমর্থকরা।

সেই আশায় জল ঢেলে দিল বৃষ্টি। ব্রিস্টলে দিনভর বৃষ্টির প্রকোপে মাঠ প্রস্তুত করা যায়নি। দুই দফা মাঠ পরিদর্শন করেও ইতিবাচক কিছু জানাতে পারেননি আম্পায়াররা।

অবশেষে ঘোষণা এলো ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ারই। স্থানীয় সময় ১টা ৫৭ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৬টা ৫৭) ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছেন আম্পায়াররা।

খেলা হলে কি হতো? তা নিয়ে আগাম মন্তব্য ঠিক না। বিশেষ করে খেলাটি যখন ক্রিকেট, যার পরতে পরতে অনিশ্চয়তা। ওঠা নামা। কখন কবে কি ঘটে যায়, আগাম বলা কঠিন। তারপরও বাংলাদেশ দল এখন যে অবস্থায় আছে, তাতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয়টাই প্রত্যাশিত ছিল।

তাই ব্রিস্টলের আকাশ গোমড়া করে থাকলেও কোটি বাংলাদেশ ভক্ত ও সমর্থক আশায় উন্মুখ হয়ে ছিলেন বৃষ্টি কেটে যাবে। খেলা গড়াবে মাঠে এবং মাশরাফির দল জিতবে। প্রকৃতির বৈরী আচরণে সে আশা আর পূরণ হলো না।

ব্রিস্টলে ম্যাচের আগে থেকেই বৃষ্টি ছিল। স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় (বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টা) পিচ ও আউটফিল্ড পরিদর্শনের কথা ছিল আম্পায়ারদের, বৃষ্টির কারণে সেটি স্থগিত করা হয়।

কারণ সকাল ১০টার পর থেকে আবারও ঝিরঝিরে বৃষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টির তোড় খুব না হলেও বাতাসের কারণে তার প্রবলতা বেশি মনে হচ্ছিল। সেই বৃষ্টি পরে আর থামেনি।

আবহাওয়ার অবস্থা দেখে পরে আবার জানানো হয়, স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া ১২টার দিকে আম্পায়াররা আবারও পিচ ও আউটফিল্ড পরিদর্শন করবেন। বৃষ্টির কারণে সেই পরিদর্শনও বাতিল করা হয়।