শুভ জন্মদিন শেখ মাহমুদ এ রিয়াত

Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক এবং দৈনিক আজকালের খবর এর সিনিয়র রিপোর্টার শেখ মাহমুদ এ রিয়াতের জন্মদিন আজ ৭ নভেম্বর। দ্য ইকনোমি টুডে’র পক্ষ থেকে শেখ মাহমুদ এ রিয়াতকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

শেখ মাহমুদ এ রিয়াত ১৯৭৪ সালের ৭ নভেম্বর খুলনার পাইকগাছা উপজেলার মেলেকপুরাইকাটি গ্রামে এক সভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম শেখ আবু হায়াত সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। মাতা আফরোজা সুলতানা একজন গৃহিনী। তিন ভাই-বোনের মধ্যে রিয়াত বড়। ছোট ভাই শেখ শামীম এ মিরাজ, ব্যাংকার ও বোন নিগার সুলতানা (জানি) আইন পেশায় জড়িত।

তালা বি দে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি ও তালা সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন রিয়াত। এরপর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস বিষয়ে ভর্তি হন। তবে বেশিদিন সেখানে পড়া সম্ভভ হয়নি। পরবর্তীতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৮ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে মাষ্টার্স পাস করার পর ২০০২ সালে এআইএমটি (AIMT) থেকে এক্সিকিউটিভ এমবিএ (Executive MBA) ডিগ্রি অর্জন করেন।

২০০৮ সালে মালয়েশিয়াতে আন্তর্জাতিক সাংবাদিকতা ফেলোশিপ (International Journalism Fellowship) অর্জন করে সাংবাদিকতা ও উন্নয়ন (Journalism and Development) বিষয়ে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের মালেয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে থেকে কৃতিত্বের সাথে ফেলোশিপ শেষ করেন।

রিয়াতের স্ত্রীর নাম আফরোজা পারভীন (কেয়া)। শেখ রাফসান বিন মাহমুদ ও শেখ রাহিল বিন মাহমুদ (সমৃদ্ধ) নামে দুই পুত্র সন্তান রয়েছে এ দম্পতির।

সাংবাদিকতা : শেখ মাহমুদ এ রিয়াত ১৯৯৮ সালের ২ মে খুলনা থেকে প্রকাশিত দৈনিক অনির্বাণ পত্রিকা দিয়ে সাংবাদিকতার ক্যারিয়ার শুরু করেন। পরে ঢাকাতে এসে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও সাপ্তাহিকে কাজ করেন। দেশি ও বিদেশি বিভিন্ন মিডিয়ায় কাজ করেছেন তিনি। এর মধ্যে দৈনিক ডেসটিনি, দৈনিক খোলা কাগজ, বার্তা২৪ ডটকম, ভোরের ডাক, অর্থনীতির কাগজ, নির্ভীক সংবাদ, নিউজ টাইম ঢাকা, ও মালয়েশিয়ার নিউজ এজেন্সি বারনামা উল্লেখযোগ্য।

এ ছাড়া বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স মিডিয়াতে কাজ করেছেন রিয়াত। ১৯৯৫ সালে খুলনা বেতারে ছোটদের শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মিডিয়ায় পথচলা শুরু তার। এ ছাড়া ২০০৪ সালে পদ্মা প্রোডাকশন লি. এর মাধ্যমে টেলিভিশনে টকশোসহ সমসাময়িক বিষয়ে বিভিন্ন ডকুমেন্টারি ও বিজ্ঞাপন নির্মাণ করেছেন তিনি।

আঠারো বছরের সাংবাদিকতার ক্যারিয়ারে গত এগারো বছর ধরে ‘অর্থনীতি’ বিটে কাজ করছেন রিয়াত। বর্তমানে ‘দৈনিক আজকালের খবর’ পত্রিকায় সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত তিনি।

লেখক : ছোটবেলা থেকেই শেখ মাহমুদ এ রিয়াত লেখালেখিতে জড়িত। ১৯৯০ সালে স্বৈরাচার এরশাদকে নিয়ে প্রথম পথনাটক ‘ভাঙল যখন দুর্গ’ মঞ্চায়িত হয়। ১৯৯৮ সালে ‘অদেখা ভুবন’ নামে ছোট গল্প লিখে পুরস্কার লাভ করেন। দীর্ঘ বিরতির পরে ২০১৫ সালে একুশে বই মেলায় ‘এক ঋতুর দেশে’ নামে ভ্রমণ বিষয়ক বই প্রকাশিত হয়। চলতি বছর (২০১৭) প্রকাশিত হয় ‘সময়ের বালুচরে’ (ছোটগল্প)। রিয়াত জানান, আগামী ফেব্রুয়ারিতে (২০১৮) অমর একুশে বই মেলায় ছোটগল্পের বই প্রকাশের প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। এছাড়া বেশকিছু গবেষণা প্রবন্ধ ও ব্যতিক্রমধর্মী একটি উপন্যাসের লেখার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান তিনি। এ ছাড়া ‘স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক’ একটি মাসিক সংকলন বের করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তার একাধিক ভ্রমনকাহিনী, প্রবন্ধ, গবেষণা ও ছোট গল্প বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

রিয়াত বাল্যকাল থেকে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। মিশুক, সদাহাস্যোজ্জল ও নেতৃত্বের গুণাবলী সম্পন্ন রিয়াত অতিদ্রুত মানুষকে আপন করে নিতে পারেন। গণমাধ্যমে কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন পুরস্কার লাভ করেছেন তিনি। ইন্টারন্যাশনাল জার্নালিজম ফেলোশিপ (মালয়েশিয়া), বেস্ট রিপোর্টার হিসেবে ডিআরইউ ও শেরে বাংলা ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের পুরস্কার অর্জন করেছেন তিনি। টিভি মিডিয়ায় অনুষ্ঠান নির্মাতা হিসেবে ২০০৬ সালে ডিসিআরইউ পুরস্কার লাভ করেন। এ ছাড়া লেখক হিসেকে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সদস্য লেখক সম্মাননা, সাংস্কৃতিক সংসদসহ বিভিন্ন সংঠনের কাছ থেকে পেয়েছেন স্বীকৃতি।

সংগঠন : শেখ মাহমুদ এ রিয়াত ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) স্থায়ী সদস্য। খুলনা বিভাগীয় সাংবাদিক ফোরামের (কেডিজেএফ) প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রিয়াত বর্তমানে সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনার দায়িত্ব পালন করছেন। MPI-International Journalism Fellowship Alumni (Malaysia) এর স্থায়ী সদস্য তিনি। এ ছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত রিয়াত।

বর্তমান কমিটিতে (২০১৭) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন। এছাড়া গতবছর (২০১৬) ডিআরইউ কমিটিতে ‘কার্যনির্বাহী সদস্য’ নির্বাচিত হন এবং সফলভাবে ‘রিপোর্টার্স ভয়েস’ এর সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন শেখ মাহমুদ এ রিয়াত। আসন্ন ডিআরইউ নির্বাচনে এবার অংশগ্রহণ করবেন না বলে জানিয়েছেন তিনি।

পেশাগত কারণে রিয়াত বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সফর করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে ভারত, নেপালসহ সার্কভূক্ত সাত দেশ, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড ও ব্রুনাই।

লেখালেখি, গান গাওয়া ও শোনা এবং দূরে কোথাও ঘুরতে যাওয়া তার অন্যতম শখ। জীবনের শেষদিন পর্যন্ত যেন সৎ ও নৈতিকতা নিয়ে থাকতে পারেন-নিজের জন্মদিনের আনন্দময় মুহূর্তে সকলের কাছে এ দোয়া কামনা করেছেন রিয়াত।