টি-টুয়েন্টি দলে ফিরলেন মুমিনুল-নাসির-লিটন

Print Friendly, PDF & Email

ওয়ানডেতে মুমিনুল হক চলে না। এ দাবী বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ হাথুরুসিংহের। সেখানে তার অধীনে টি-টুয়েন্টিতেই জায়গা ফিরে পেয়েছেন টেস্ট স্পেশালিষ্ট হিসেবে খ্যাত মুমিনুল। পাঁচ বছর পর এ সংস্করণে ফিরলেন তিনি। তার সঙ্গে দলে ফিরেছেন নাসির হোসেন ও লিটন কুমার দাসও। প্রায় আমূল বদলে গেছে দল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ ঘোষিত টি-টুয়েন্টি দল থেকে ৭ ক্রিকেটার পরিবর্তন নিয়ে শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।
শ্রীলঙ্কাতেই টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন এ সংস্করণের তৎকালীন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তাই স্বাভাবিকভাবেই দলে নেই তিনি। যদিও দক্ষিণ আফ্রিকায় তাকে ফেরার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিলেন বর্তমান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও কোচ হাথুরুসিংহে। মাশরাফি ছাড়াও শেষ সিরিজ থেকে বাদ পড়েছেন আরও ৬ ক্রিকেটার।
ওয়ানডে সিরিজের আগেই হঠাৎ করে ইনজুরিতে পড়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। এরপর সে তালিকায় যোগ দেন তামিম ইকবাল। যদিও টেস্ট সিরিজেই ইনজুরিতে ছিলেন তিনি। দেশের দুই সেরা ক্রিকেটারকে টি-টুয়েন্টিতে পাচ্ছেনা বাংলাদেশ। আর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগেই চোখের ইনজুরিতে পড়া মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও নেই দলে। এছাড়াও বাদ পড়েছেন নুরুল হাসান সোহান, সানজামুল ইসলাম ও শুভাশিস রায়।
তাদের জায়গা পূরণে দলে ফিরেছেন বেশ কিছু পুরনো খেলোয়াড়। টপ অর্ডারে তামিমের জায়গায় নেওয়া হয়েছে মুমিনুলকে। ঘরের মাঠে ২০১২ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষবার টি-টুয়েন্টি খেলতে নেমেছিলেন তিনি। গত টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ফিরলেন নাসিরও। আর দুই বছর পর আবার টি-টুয়েন্টিতে জায়গা হলো লিটনের।
চার বছর পর টি-টুয়েন্টি দলে ফিরেছেন শফিউল ইসলাম। সর্বশেষ ২০১৩ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দলে ছিলেন তিনি। আর এক সিরিজ পর দলে ফিরেছেন রুবেল হোসেন। নিউজিল্যান্ডে দুর্দান্ত পারফরম করার পরও শ্রীলঙ্কা সিরিজে ছিলেন না তিনি। তবে পারফরম করেই আবার দলে জায়গা করে নিয়েছেন এ পেসার।
বাংলাদেশ দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহীম, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, লিটন কুমার দাস, নাসির হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, শফিউল হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও সাইফউদ্দিন।