ইসলামী ব্যাংকের ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলন ’১৫ শুরু

Print Friendly, PDF & Email

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর দুই দিনব্যাপী ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ১০ জানুয়ারি ২০১৫, শনিবার স্থানীয় হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মোহাম্মদ আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মো. ইসকান্দার আলী খান। ব্যাংকের পরিচালক মো. আব্দুস সালাম, এফসিএ, এফসিএস, হুমায়ুন বখতিয়ার, এফসিএ, প্রফেসর এনআরএম বোরহান উদ্দিন, পিএইচডি, অধ্যাপক ড. একেএম সদরুল ইসলাম, ব্যারিস্টার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মোহা. শামসুল হক, মোহাম্মদ আবুল বাশার, মো. হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া, এফসিএ, একেএম আবদুল মালেক চৌধুরী, মো. মাহবুব-উল-আলম, রফি আহমেদ বেগ ও নুরুল ইসলাম খলিফাসহ ১৪টি জোনের জোনপ্রধান, ২৯৪টি শাখার ব্যবস্থাপক এবং উর্ধ্বতন নির্বাহীবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, ২০১৪  সাল বাংলাদেশের আর্থিক খাতের জন্য একটি ঘটনাবহুল বছর ছিল। এর মধ্যেও ইসলামী ব্যাংক এ বছর আমানত, বিনিয়োগ, রেমিট্যান্স, বৈদেশিক বাণিজ্য ও আর্থিক অন্তর্ভূক্তিসহ সকল ক্ষেত্রে ইতিবাচক অগ্রগতি অর্জনে সক্ষম হয়েছে। তিনি বলেন, ইসলামী ব্যাংক ২০১৪ সালে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও আঞ্চলিক বৈষম্য কমিয়ে দেশের সুষম উন্নয়নের জন্য বিনিয়োগ সম্প্রসারণ ও স্থানীয় আমানত স্থানীয়ভাবে বিনিয়োগের উপর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করেছে যা ২০১৫ সালে আরো বেগবান হবে। তিনি বলেন, ইসলামী ব্যাংকের প্রতি জনগণের আস্থা, সম্পৃক্ততা, ব্যাংকের মানসম্মত সেবা, পরিচালনাগত দক্ষতা, সকল কাজে স্বচ্ছতা এবং জনশক্তির সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফলেই এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে।

সম্মেলনে উল্লেখ করা হয় যে, ইসলামী ব্যাংক ২০১৪ সালে বেশ কয়েকটি নতুন মাইলফলক অর্জন করেছে। এ বছর ব্যাংকের আমানতের পরিমান ৮,৮৮৭ কোটি টাকা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৫৬,২১৪ কোটি টাকা এবং বিনিয়োগের পরিমাণ ৬২২৬ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৭,৮৮৮ কোটি টাকায়, আমদানি ও রফতানি বাণিজ্য হয়েছে যথাক্রমে ৩১,৬৯৭ ও ২২,২৭৫ কোটি টাকা এবং রেমিটেন্স আহরিত হয়েছে ৩০,৭৯৬ কোটি টাকা। কর্মসংস্থান সৃষ্টি, অবকাঠামো নির্মাণ ও শিল্পায়নের উপর গুরুত্ব দিয়ে এ ব্যাংক এ বছরও বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, গার্মেন্টস শিল্প ও কৃষি খাতে বিনিয়োগ সম্প্রসারণ করেছে। ইসলামী ব্যাংক এসএমই খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আসছে যার ফলে এ খাতে দেশের মোট বিনিয়োগের ২৭ শতাংশ এককভাবে এ ব্যাংকের। ক্ষুদ্র অর্থায়নের মাধ্যমে এ ব্যাংক ১৮ হাজার গ্রামে ৯ লক্ষাধিক পরিবারের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।